Select your Top Menu from wp menus
Last updated: 29/03/2021 at 10:14 PM | আজ শনিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৪ বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ রমজান, ১৪৪২ হিজরি
শিরোনাম

বর্তমান সরকার হিজড়া ও অনগ্রসরদের উন্নয়নে কাজ করছে….এমপি ওদুদ

ইমরান আলী : চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদ বলেছেন, বর্তমান সরকারই হিজড়া, বেদে ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠির পাশে দাঁড়িয়েছে এবং বিভিন্নভাবে তাদের উন্নয়নে করছে। এর আগে কোন সরকার এসব পিছিয়ে পড়া মানুষদের কথা ভাবেনি। বর্তমান সরকার, জনবাদ্ধব সরকার। আওয়ামীলীগ সরকার হিজড়াদের জন্য চিরস্থায়ী গুচ্ছগ্রাম প্রতিষ্ঠার কথা ভাবছে এবং হরিজনসহ অন্যান্য অনগ্রসর জনগোষ্ঠির জন্য আবাসন প্রকল্প বাস্তবায়ন কার্যক্রম হাতে নিয়েছেন।
তিনি বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় হিজড়া ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠির প্রত্যেকে আবাসিক ভবন গড়ে তুলে বসবাসের ব্যবস্থা করা হবে।
২৪মে (বৃহষ্পতিবার) দুপুরে জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের আয়োজনে হিজড়া, বেদে ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠীদের মাঝে প্রশিক্ষণোত্তর উপকরণ ও সনদপত্র এবং আর্থিক সহায়তা বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, বঞ্চিত ও অবহেলিত মানুষের পাশে সব সময় থাকবো। বর্তমান সরকারও এসব মানুষের পাশে আছে। আগামীতে হিজড়া ও অনগ্রসর মানুষদের স্বাবলম্বী করতে কাজ করবো। তিনি চাঁপাইনবাববগঞ্জের হিজড়া ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠির অসহায় মানুষদের জন্য হাত বাড়িয়ে দেয়ায় সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান। তিনি হিজড়া ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠির মানুষদের উদ্দেশ্য করে বলেন, নিজেদের কখনো ছোট বা অবহেলিত মনে করবেন না। আপনাদের পাশে সরকার রয়েছে এবং স্বাবলম্বী করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছেন সরকার। জাতীয় সংগীত গেয়ে অনুষ্ঠানের শুরু হয়।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালন ড. চিত্রলেখা নাজনীনের সভাপতিত্বে এসময় বক্তব্য রাখেন, সিভিল সার্জন খায়রুল আতাতুর্ক, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আলমগীর হোসেন, জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক তৌহিদুল ইসলাম, ববিতা খাতুন (হিজড়া) ও দলিত বঞ্চিত জনগোষ্ঠির সভাপতি বম্ভ্রনাথ ঠাকুরসহ অন্যরা। এসময় ‘দৈনিক চাঁপাই দর্পণ’র সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রঞ্জু, সমাজসেবা অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক সিরাজুম মনির আফতাবীসহ স্থানীয় প্রিন্ট ও ইলেক্টনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকরা।
জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উদ্যোগে কম্পিউটার, সেলাই মেশিন, পশু পালন ও বিউটিফিকেশন মোট ৪টি ট্রেডে প্রশিক্ষণ নেয়া হিজড়া, বেদে ও অনগ্রসর জনগোষ্ঠীদের ১০০জনের মাঝে এই উপকরণ সহায়তা বাবদ ১০ হাজার করে ১০ লাখ টাকা প্রদান করা হয়। এর মধ্যে হিজড়া ৫০ জন ও বেদে-অনগ্রসর জনগোষ্ঠির ৫০ জনকে এই সহায়তা দেয়া হয়। জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরন সূত্রে জানাই, বর্তমানে জেলায় ৭৩ হাজার ৬৩৮জনকে বিভিন্ন ভাতা দেয়া হচ্ছে। এ পর্যন্ত জেলায় ৪৭ কোটি ৫৪ লক্ষ টাকা সহায়তা বিতরণ করা হয়েছে। জেলার হিজড়াদের বয়স্ক ভাতাসহ বিভিন্ন ভাতা দেয়া হচ্ছে।
ক্তারা এসব পিছিয়ে পড়া মানুষের পাশে দাঁড়ানো জন্য সকল শ্রেণির পেশার মানুষদের আহ্বান জানান।

About The Author

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *